সায়ন্তিকা কোভিডে বাঁকুড়া বাসীর জন্য চালু করল “দুয়ারে অক্সিজেন”,পাবে ‘দুয়ারে খাবার’,অ্যাম্বুলেন্সও

5
602

মোতাহার হোসেন , বাঁকুড়া : ২০২১-এর ভোট যুদ্ধে অল্পের জন্য শেষ হাঁসি না হাঁসলেও সায়ন্তিকা বলেন, বাঁকুড়ার মানুষ আমার প্রাণ। তাই অতি মহামারি করোনা কালে দেশে অক্সিজেন ঘাটতির জন্য প্রাণ হাড়াতে দেখছি বহু মানুষকে। তাই বাঁকুড়ায় এবার পূর্ব প্রতিশ্রুতি মতো আজ থেকে চালু হল “দুয়ারে অক্সিজেন” প্রকল্প।

অভিনেত্রী বলেন,এই মুহুর্তে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হোম আইসোলেশনে থাকাকালীন অনেকেরই অক্সিজেনের প্রয়োজন হচ্ছে। এই পরিষেবা দুয়ারে পৌঁছে দিতে একটি বিশেষ গাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার রাখা থাকবে। দেওয়া হবে নির্দিষ্ট হেল্পলাইন নম্বর। অক্সিজেন নিয়ে গাড়ি পৌঁছে যাবে রোগীর দুয়ারে।

এদিন সেই বিশেষ পরিশেবা “দুয়ারে অক্সিজেন” -পরিষেবার শুভ উদ্বোধন করলেন সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আরো বলেন, এছাড়াও হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করে জানালে সেই বাড়িতে বিনামূল্যে দু’বেলা খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে। যার নাম দেওয়া হয়েছে “দুয়ারে খাবার” প্রকল্পে।

উল্লেখ্য বাঁকুড়া বিধানসভায় বিজেপী প্রার্থী নিলাদ্রী সেখর দানা জয়ী হলেও করোনার এই মহামারিতে বাঁকুড়া বাসী তাঁর এখনো দেখা পায়নি বলে অভিযোগ। পাশাপাশি খুশি সায়ন্তিকার এই উদ্যোগে।

বাঁকুড়ায় পরে থেকে যে ভাবে দলীয় কর্মীদের নিয়ে যে ভাবে করোনা পরিস্তিতে কাজ করছে, তাঁদের কাছে তিনি তাঁদের বিধায়ক। এদিন সায়ন্তিকা বলেন, ভোটে পরাজয়ের পরেও আমি দূরে সরে যাইনি বাকুড়াবাসীর থেকে। ভোটের শুরুতেই কথা দিয়েছিলাম।

সেই প্রতিশ্রুতি মতো বাঁকুড়ার মানুষের সঙ্গে আমি আছি, থাকব। করোনা চলে গিয়ে মানুষ সুস্থ স্বাভাবিক জীবনে ফিরুক। তার পর আগামী দিনে জল নিয়েও বাঁকুড়ায় কাজ করব। কারন এটা এটা আমার স্বপ্ন ছিল। এ ছাড়া কোভিড রোগীদের নিয়ে যাতায়াতের জন্য শীঘ্রই ২-টি অ্যাম্বুল্যান্স চালু করার কথা জানিয়েছেন অভিনেত্রী সায়ন্তিকা।

5 COMMENTS

  1. Hello there I am so glad I found your site,
    I really found you by mistake, while I was researching on Aol for something else, Nonetheless I am here
    now and would just like to say many thanks for a incredible
    post and a all round enjoyable blog (I also love the theme/design), I don’t have
    time to look over it all at the moment but I have saved it
    and also added in your RSS feeds, so when I
    have time I will be back to read a lot more, Please do keep up the great b.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here