লাদাখের শহীদদের স্মৃতিতে গান গাইলেন রাজ্যের মন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায় ! 

0
204

লাদাখের শহীদদের স্মৃতিতে গান গাইলেন রাজ্যের মন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায় ! 

BAHRS GLOBAL NEWS, 25 JUN 2020
তীর্থঙ্কর মুখার্জি , কলকাতা : লাদাখের ঘটনায় শহীদ ভারতীয় সেনাদের স্মৃতিতে গান গাইলেন রাজ্যের বন মন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায়। এর আগে মন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রীর সভাতে গান গেয়ে মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা কুরিয়েছেন। একাধিকবার গলা ছেড়ে গান গাইতে শোনা গিয়েছে মন্ত্রী কে। তবে এবার সেনাদের উদ্দেশ্যে তিনি গাইলেন দেশাত্মবোধক একটা গান।
দেশাত্মবোধক এই গানটির লেখা ও সুর সুজয় গোস্বামীর ৷ দক্ষিণ কলকাতার একটি স্টুডিওতে এটি বানানো হয়েছে। রাজীববাবু জানিয়েছেন, দেশের সীমানা যারা রক্ষা করেন তাঁদের জন্যেই আমরা রাতে নিশ্চিন্ত হয়ে ঘুমাতে পারি।সেনাদের এই আত্মবলিদান আমাদের মনে রাখতে হবে। তাই এই গান আমি গেয়েছি। মন্ত্রী রাজীব ব্যানার্জি তাঁর গাওয়া গানটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতেই কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রচুর মানুষ শুনে ফেলে গানটি। বেশ জনপ্রিয় হয়েছে গানটি।

Dear soldiers of the land,Brave brave men, putting your lives on the line, we salute you! Our words of honour are too…

Posted by Sri. Rajib Banerjee on Wednesday, June 24, 2020

হিন্দুস্তান মেরি জান গান গাইলেন রাজীব ব্যানার্জি
দেশাত্মবোধক এই গান রচনা করেছেন রাজীব বাবুর পরিচিত সুজয়। সুজয়কে অবশ্য বিভিন্ন সময় তৃণমূলের নানা প্রচার মূলক গানে দেখা গিয়েছে। এবার তিনি মন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায়ের জন্যে হিন্দিতে এই গান লিখে দিয়েছেন। গানের প্রতিটি ছত্রে ছত্রে দেশাত্মবোধক নানা শব্দের উল্লেখ রয়েছে। রাজীব বাবু জানিয়েছেন, সেনা বাহিনীকে অনুপ্রাণিত করার জন্য আমার এই গান।
সীমান্ত রক্ষা করার কাজ যাদের তাদের ভালো থাকার জন্যে আমাদেরও এগিয়ে আসা উচিত। তাই এই গান আমাদের। তবে তিনি মনে করেন নাগরিকদের আরও বেশি সচেতন হওয়া জরুরি। তাহলে সেনাদের প্রতি মানুষের শ্রদ্ধা আরও বাড়বে।তবে শুধু শ্রদ্ধা জানিয়ে গান গাওয়া নয়, প্রয়োজনে তিনি সীমান্তে গিয়ে সেনাদের অনুপ্রানিত করতে গান গাইবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। আপাতত ফেসবুক, ট্যুইটার, ইউটিউবে শোনা যাবে এই ভিডিও সহ গানটি। মন্ত্রী জানাচ্ছেন শুধু গান গেয়ে ক্ষান্ত হলে চলবে না।
তিনি ওই দুই শহীদ পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করবেন। আগামীকাল তিনি দক্ষিণ দিনাজপুরে যাবেন। সেখান থেকে আলিপুরদুয়ার যাবেন শহীদ পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করতে। বীরভূমের শহীদ পরিবারের সদস্যদের সাথেও তিনি দেখা করবেন। রাজীব বন্দোপাধ্যায়ের পরিবারের তরফ থেকে একটা ট্রাস্ট চালানো হয়। সেই ট্রাস্ট এই দুই শহীদ পরিবারের যে বা যারা পড়াশোনা করছে তাদের পড়াশোনার দায়িত্ব নেবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here