মমতার নির্দেশে দক্ষিণ দিনাজপুরে রাজীব নিলেন কড়া পদক্ষেপ !

0
216

মমতার নির্দেশে দক্ষিণ দিনাজপুরে রাজীব নিলেন কড়া পদক্ষেপ !

BAHRS GLOBAL NEWS, 27 JUN 2020
তীর্থঙ্কর মুখার্জি , কলকাতা : ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে ঘর গুছোতে কড়া পদক্ষেপ নিল তৃণমূল কংগ্রেস। সংগঠনকে আরও জোরদার করতে অনেক নেতানেত্রীর ডানা ছাঁটাও চলছে।
লোকসভা নির্বাচনে এবার উত্তরবঙ্গে সমস্ত আসনে পরাজিত হতে হয়েছে তৃণমূলকে। তারপর উপনির্বাচনে কামব্যাকের ইঙ্গিত দিলেও তৃণমূল অন্তর্দ্বন্দ্বে জেরবার। এই অবস্থায় তৃণমূলকে নতুন করে অঙ্ক কষতে হচ্ছে ২০২১-এর লক্ষ্যে। তা করতে গিয়েই কোপ পড়েছে অর্পিতা ঘোষের ডানহাত-বামহাত বলে পরিচিত দুই নেতার ঘাড়ে।
তৃণমূলের পক্ষ থেকে কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার অন্তর্দ্বন্দ্ব মেটাতে। অর্পিতা ঘোষ দায়িত্ব নেওয়ার পরে বিপ্লব মিত্রের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয়। যার জেরে বিপ্লব মিত্রের মতো সংগঠক বিজেপিতে যোগ দেন। দেবাশিস মজুমদার ও শুভাশিস পালকে কার্যনির্বাহী সভাপতির দায়িত্ব দেন।
অর্পিতার নেতৃত্বে দেবাশিস ও শুভাশিস সর্বেসর্বা হয়ে ওঠেন দক্ষিণ দিনাজপুর তৃণমূলের। এরই মধ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক চলাকলীনই জেলার কার্যনির্বাহী সভাপতি করেন বিধায়ক গৌতম দাসকে। তারপর জেলার পর্যবেক্ষক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় বৈঠকে দুই নেতাকে সরিয়ে দেন।
রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, দলের পদ পেয়ে ধরাকে সরা জ্ঞান করা যাবে না। মনে রাখতে হবে সবার উর্ধ্বে দল। দলকে ব্যবহার করে নিজেরা দাপট দেখাবেন, তা চলবে না। মানুষের পাশে থাকতে হবে। মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। তবেই দলের কাছে তাঁরা ভালো নজরে থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here