ভয়াবহ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ,দেশে দৈনিক সংক্রমণ ছাড়িয়ে গেল ১ লক্ষ ! বাড়ল মৃত্যুর হার

1
263

অমিত শর্মা, নয়া দিল্লি : গতবছর এতটাও ভয়াবহ হয়নি, যা করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ঘটেছে।  দেশে দৈনিক সংক্রমণ ছাড়িয়ে গেল ১ লক্ষ। ভয় ধরাচ্ছে দেশের দৈনিক করোনা গ্রাফ। এক ধাক্কা ১ লক্ষ পেরোল দৈনিক করোনা সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১,০৩,৫৫৮ জন। দিনে এক লক্ষ করোনা সংক্রমণের দেশ গুলির তালিকায় ফের ঢুকে পড়ল ভারত। দেশে মোট দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১,২৫,৮৯,০৬৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১,০৩,৫৮৮ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক প্রকাশিত করোনা সংক্রমণের দৈনিক রিপোর্টের পর ভারত দৈনিক ১ লক্ষ করোনা সংক্রমিক দেশগুলির তালিকায় ঢুকে পড়ল। ভারত এখন আমেরিকার পরেই রয়েছে। অর্থাৎ দৈনিক করোনা সংক্রমণের নিরিখে ভারত এখন আমেরিকার পরেই। দেশে এখন মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,২৫,৮৯,০৬৭ জন।

করোনা সংক্রমণে এখনও শীর্ষে মহারাষ্ট্র। পরিস্থিতি সামাল দিতে সপ্তাহান্তে লকডাউন জারি করা হয়েছে। পুণে শহরে সব ধর্মীয় স্থানে সাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিলে ১৪৪ ধারাও জারি করা হয়েছে সকাল সাতটা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। মুম্বইয়ে একদিনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১১, ১৬৩জন। কিন্তু তারপরেও দাদরের সবজি বাজারে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না মহারাষ্ট্র সরকারের। মহারাষ্ট্রের পর করোনা আক্রান্ত রাজ্য গুলির মধ্যে কর্ণাটকে আক্রান্তের সংখ্যা ৪,৫৫৩, কেরলে ২৮০২,অন্ধ্রপ্রদেশে ১৭৩০, তামিলনাড়ুতে ৩৫৮১, দিল্লিতে৪০৩৩, উত্তরপ্রদেশে ৪১৩৬, পশ্চিমবঙ্গে ১,৯৫৭, ছত্তিসগঢ়ে ৫২৫০, গুজরাট ২৮৭৫, মধ্যপ্রদেশে ৩১৭৮, পঞ্জাবে ৩০০৬ জন। 

করোনা সংক্রমণে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ৪৭৪ জন। অর্থাৎ দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ৫০০ ছুঁই ছুঁই। দেশে করোনা সংক্রমণে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১,৬৫,১০১ জন। দেশে এখন অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে। মোট ৭,৪১,৮৩০ জন অ্যাক্টিভ রোগী রয়েছেন দেশে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা কাটিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন ৫২, ৮২৭ জন।

করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হতে শুরু করেছেন একের পর এক তারকা। ইতিমধ্যেই করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অভিনেতা অক্ষয় কুমার এবং প্রাক্তন ক্রিকেটার সচিন তেণ্ডুলকর। করোনা আক্রান্ত আমির খানও। করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে দিনে ১ লক্ষ টিকাকরণের টার্গেট নিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। এদিকে আজই কর্নাটকে আইআইটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৫জন পড়ুয়া।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here