ভোটে বিপুল জয়ের পর রায়গঞ্জ পুরসভার কাউন্সিলার হিমাদ্রীকে পাশে নিয়ে কী জানাল রাজ্য যুব নেতা ইভান !

0
629

প্রজয় চক্রবর্তী, রায়গঞ্জ : রাজ্য জুড়ে পুরভোটে শুধুই সবুজ ঝড়। পৌর নির্বাচনে তৃণমূলকে উজার করে ভোট দিয়েছে উত্তরবঙ্গ তথা বাংলার মানুষ। ভোট প্রচার থেকে ফলাফল পর্যন্তত মাটি কামরে পরেছিল রাজ্য তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সম্পাদক ইভান দাস।

ভোট ফলাফল বেরতেই যুব নেতা ইভান দাস বলেন, পুরভোটে তৃণমূলের এই জয় নিশ্চিত ছিল। কারন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উন্নয়নের নিরিখে এই ভোট ব্যালোট বক্সে পড়েছে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বেন, হারের পর বিরোধিরা কুৎসা করবেই কারণ মানুষ তাঁদের ছুড়ে ফেলে দিয়েছে।

এদিন সাংবাদিকের মুখোমুখি হয়ে ইভান দাস বলেন, উত্তরবঙ্গে পুরভোটের প্রচারে ব্যস্থ ছিলাম। আজ পুরসভার ফলাফলে আমি আপ্লুত। আমরা সকলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৈনিক। যুব্রাজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্য তৃণমূল যুব সভাপতি সায়নী ঘোষের নির্দেশে ও আদর্শে আমরা নিষ্ঠার সাথে দলের জন্য কাজ করি এবং পুরভোটে তৃণমূলের প্রার্থীদের প্রচারে ঝাঁপিয়ে পরেছিলাম।

আজ জলপাইগুড়ি ফেরার পথে দেখা করলাম বিশিষ্ট সমাজসেবি রায়গঞ্জ পুরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের পুরপিতা হিমাদ্রী সরকারে সাথে। যুব দের নিয়ে রাজনৈতিক আলচোনাও হয়। আগামীর রায়গঞ্জ পুরসভার পুরভোট নিয়েও গুরুত্বপূর্ণ কিছু আলোচনা হয়। উল্লেক্ষ্য দার্জিলিং পুরসভা বাদে কোচবিহার থেকে মালদা পর্যন্ত সবকটি পুরসভা দখল নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস।

বাংলায় পুরভোটের ফলাফলের দিনই উত্তরপ্রদেশে সমাজবাদি পার্টির সমর্থনে প্রচারে গিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারানসিতে হেনস্থা হতে হয়। মুখ্যমন্ত্রীর হেনস্থার ঘটনায় যুব তৃণমূলের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা করেন রাজ্য তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সম্পাদক ইভান দাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here