বাড়ির মহিলারা হবে প্রধান, রাজ্যের সব বাসিন্দাদের জন্য স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী !

62
2249

বাড়ির মহিলারা হবে প্রধান, রাজ্যের সব বাসিন্দাদের জন্য স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী !

পিয়ালী সিনহা, কলকাতা : রাজ্যের সব বাসিন্দাদের জন্য স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা দেশের এবং বিশ্বের কোনও সরকার করে উঠতে পেরেছে। সেটাই করে দেখাবে মমতা সরকার। রাজ্যের সব বাসিন্দাদের জন্য স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী।
এবার থেকে রাজ্যের সব বাসিন্দা স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের কার্ড পাবেন। দুয়ারে দুয়ারে কর্মসূচিতে এই প্রকল্পের আওতায় সকলকে আনা হবে বলে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যবাসী যেন তাঁদের বাড়িতে তৃণমূল কর্মীরা গেলে এই প্রকল্পের কথা জানতে চান আগেই জানিয়ে দিয়েছেন মমতা।
একুশের বিধানসভা ভোটের আগে বড় চমক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সবার জন্য স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প ঘোষণা করেছেন তিনি। এবার থেকে রাজ্যের সব বাসিন্দা স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় আসবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
বাড়িরমহিলাদের নামে হবে সেই বিমা। বিনামূল্যে সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার সুযোগ পাবেন প্রত্যেক পরিবারের লোকেরা। বাড়ির মহিলাদের প্রধান হিসেবেই তাঁদের নামে এই কার্ড করানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
বাঁকুড়ার সভা থেকে রাজ্যে দুয়ারে দুয়ারে কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই কর্মসূচিতে রাজ্যের প্রতিটি বাড়িতে রাজ্য সরকারের কর্মসূচি নিয়ে যাবেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাকর্মীরা। তাঁদের রাজ্য সরকারের উন্নয়নের কর্মসূচি ও একাধিক প্রকল্পের কথা জানাবেন। একুশের ভোটর আগে আন্দোলনে শান গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।
তৃণমূল কংগ্রেসের পাল্টা কর্মসূচি হিসেবে বিজেপিও দুয়ারে দুয়ারে কর্মসূচি শুরু করেছে বিজেপি। ডিসেম্বরেই রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ, জেপি নাড্ডারা। বঙ্গে বিজেপি যুব মোর্চাদের আন্দোলন জোরদার করতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই বাংলায় আগমন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। বিজেপি নেতা কর্মীরা ডিসেম্বর মাস থেকেই ঝাঁপাবেন প্রচারে।
নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক থেকে ফের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে আক্রমণ শানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি কটাক্ষ করে বলেছেন এই প্রথম কোনও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দেখছি যিনি পুরো ভোট করাতে রাজ্যে ঘুরছেন আর বাড়ি বাড়ি খেয়ে বেরাচ্ছেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য অমিত শাহ রাজ্যে এসে আদিবাসী পরিবারের বাড়িতে মধ্যাহ্ন ভোজন করেছিলেন আবার দ্বিতীয় দিন মতুয়া কর্মীর বাড়িতে মধ্যাহ্ন ভোজন করেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here