ফের চিনে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, বন্ধ স্কুল-কলেজ, বাতিল হল একাধিক উড়ান !

0
497

অমিত শর্মা, নয়াদিল্লি : ফের চিনে বাড়তে শুরু করেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল কলেজ। একাধিক উড়ান বাতিল করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। সূত্রের খবর শতাধির বিমান বাতিল করা হয়েছে চিনে করোনা সংক্রমণের কারণে। এক দল পর্যটকের মধ্যে নতুন করে করোনা সংক্রমণ দেখা দেওয়ায় আগে থেকেই সাবধানতা হিসেবে এই পদক্ষেপ করতে শুরু করে দিয়েছে বেজিং।

চিন থেকেই গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। তার জন্য এক প্রকার গোটা বিশ্বে কোনঠাসা হয়ে রয়েছে চিন। গত দেড় বছর ধরে এই মারণ মহামারীর সঙ্গে যুদ্ধ করে চলেছে গোটা বিশ্ব। যার জেরে গোটা বিশ্বের অর্থনীতিতে প্রবল ধাক্কা এসেছে। চিন থেকে করোনা সংক্রমণ ছড়ালেও সবার আগে তারাই করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছিল। এবার কড়াকড়ি অনেকটাই শিথিল করেছিল তারা।

মুক্ত জায়গায় ঘোরাফেরায় কোনও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়নি। জ্বর-সর্দিকাশি দেখা দিলে ঘরে থাকার কড়া নিয়ম জারি করেছিল বেজিং। তাতে অনেকটা স্বাভাবিক হয়েছিল পরিস্থিতি। খুলেছিল স্কুল-কলেজ। স্বভাবিক হয়েছিল অফিস আদালতও। এমনকী দোকানবাজারেও অনেকটাই স্বাভাবিক করে ফেলেছিল তাঁরা।

যেখান থেকে করোনা সংক্রমণ ছড়ানো শুরু হয় সেই ইউহানেই জনজীবন একেবারে স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছিল। আগের মতই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল সেখানে। উইহানের প্রসিদ্ধ পশুর মাংসের বাজারও খুলেছিল। কিন্তু হঠাৎ করে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ফের বাড়তে শুরু করেছে সেখানে।

জানা গিয়েছেন এক প্রবীণ পর্যটক সাংহাই থেকে শিয়ানে গিয়েছিলেন বেড়াতে। তাঁর শরীরে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। তারপরেই চিনের পর পর ৫টি প্রদেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সেখানে প্রায় ডজন ডজন মানুষ করোনা ভাইরাসের সংক্রমিত হয়েছেন। তারপরেই গণ পরীক্ষা শুরু করে স্থানীয় প্রশাসন। তারপরেই একের পর এক ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তারই শতাধিক বিমান বাতিল করা হয়েছে চিনে। এবং বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল কলেজ।

চিনে সংক্রমণ বাড়ায় ফের শঙ্কার মেঘ দেখছে গোটাবিশ্ব। কারণ করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট মারাত্মক সংক্রামক। সেটা একবার ছড়াতে শুরু করলে মুহূর্তে লক্ষাধিক মানুষ করোনা ভাইরােস আক্রান্ত হয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। এবং এই ভ্যারিয়েন্টের মারণ ক্ষমতা মারাত্মক বলেও সতর্ক করেছেন গবেষকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here