দুস্থদের খাদ্য সামগ্রী ও প্রয়োজনীয় ওষুধ বিতরন করল মানবাধিকার সংগঠনের পিয়ালী সিনহা !

0
404

দুস্থদের খাদ্য সামগ্রী ও প্রয়োজনীয় ওষুধ বিতরন করল মানবাধিকার সংগঠনের পিয়ালী সিনহা !

BAHRS GLOBAL NEWS, 16 MAY 2020
প্রজয় চক্রবর্তী, রায়গঞ্জ : কোভিড-১৯ সংক্রামণের জেরে গোটা বিশ্ব জুড়ে চলছে মৃত্যু মিছিল। এই মারন ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে তাবর তাবর বিজ্ঞানিরা এই মারন ভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি করতে দিশেহারা। তাই সমগ্র বিশ্বের পাশাপাশি ভারতেও লকডাউন কেই পাথেয় করেছে করোনা থেকে বাঁচতে। চলছে দেশেজুড়ে তৃতীয় দফার লকডাউন।
আর এই দীর্ঘ লকডাউনে সবথেকে বেশি সমস্যায় পড়েছে দিন আনা দিন খাওয়া সাধারন মানুষেরা । কারন লকডাউনে কর্মহীন হয়ে গৃহবন্দী। এবার সেই দুস্থ কর্মহীন পরিবার গুলোর হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিলেন মানবাধিকার সংগঠনের উত্তরবঙ্গের কার্যকারী সম্পাদীকা পিয়ালী সিনহা
লকডাউন ৩.০ এ টানা ১৫ দিন ধরে সেই কর্মহীন প্রায় ১৩০ জন দুস্থ পরিবারকে ৩ কেজি চাল , ১ কজি আলু ,২.৫০ গ্রাম সোয়াবিন , ২০০ গ্রাম কুকিং তেল , ২০০ টি মাক্স,১ টি করে স্যানিটাইজার  ও হাত ধোবার জন্য ১ টি করে সাবান তুলে দেন সংগঠনের উত্তরবঙ্গের ওমেন সেলের সম্পাদীকা পিয়ালী সিনহা। পাশাপাশি বেশ কিছু পরিবারকে প্রয়োজনীয় ওষুধ দেন । তিনি কখনো বাড়ি থেকে আবার কখোনো শারীরিক ভাবে অক্ষম ব্যক্তিদের বাড়ি পৌঁছে তাঁদের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন ।
এদিন তিনি জানান, লকডাউনের তৃতীয় পর্ব চলছে। এই লকডাউনে দুস্থ পরিবার গুলোর হাতে আমাদের সংগঠন এর পক্ষ থেকে ১৫ দিন ধরে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিয়া হয় তাঁদের হাতে । এই ত্রাণ সামগ্রী দিয়ে সাহায্য করেছে ওসি জি.আর.পি গৌতম সিনহা । আমার বাবা গৌতম সিনহা দুস্থ দের জন্য খাদ্য সামগ্রী দান করার জন্য আমি আমাদের মানবাধিকার সংগঠনেরHUMAN RIGHTS BAHRSWB NATIONALIST FORUM”-এর পক্ষ থেকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই।
এছাড়াও আমাদের মানবধিকার সংগঠনের পক্ষ থেকে জেলা তথা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ওমেন সেল সকল দুস্থ মানুষদের পাশে দাড়িয়েছে। লকডাউন শেষ না হওয়া পর্যন্ত পাশে থাকবে । এছাড়াও পৌঁছে দিচ্ছে তাঁদের প্রয়োজনীয় ওষুধ।
সংগঠনের কর্ণধার তীর্থঙ্কর মুখার্জি ও উত্তরবঙ্গের সম্পাদক ও রাজ্যের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ্ত রায় চৌধুরী জানান, আমাদের সংগঠনের ওমেন সেল এই লকডাইনে গৃহবন্দী কর্মহীন পরিবার গুলোর পাশে প্রতিনিয়তই খাদ্য সামগ্রী তুলে দিচ্ছে। তুলে দিচ্ছে প্রয়োজনীয় ওষুধ । কোন প্রকার সমস্যার অশুবিধার সন্মুখিন হলে রাজ্যের হেল্প লাইন নম্বরে জানান , স্থানীয় জেলা প্রশাসন কে জানান । আমাদের মানবাধিকার সংগঠনের ওয়েব সাইটেও জানাতে পারেন আপনাদের সমস্যার কথা  www.bahrswb.org

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here