দুষ্কৃতির হামলা নয়, পুরোটাই ছিল নুর আলমের অভিনয়, জানাল রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরোজ থাপা

0
295

দুষ্কৃতির হামলা নয়, পুরোটাই ছিল নুর আলমের অভিনয়, জানাল রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরোজ থাপা

পিয়ালী সিনহা , রায়গঞ্জ : গত ৫ই অক্টোবর সোমবার রাত ১০.৩০ এর নাগাদ রায়গঞ্জ থানার বাহিন গ্রাম পঞ্চায়েতের হাটমনি এলাকায় দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে জখম হয়েছিল নুর আলম নামে এক যুবক। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয় সেই খবর। রায়গঞ্জে যবুকের গুলি বিদ্ধর ঘটনায় নরে চরে বসে পুলিশ প্রশাসন। এরপর পুলিশ সুপারের নির্দেশে ঘটনার তদন্তে নামে রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরোজ থাপা ও তাঁর পুলিশ দল।
তদন্তে নেমে এক দিনেই দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে জখম হওয়া যুবকের আসল ঘটনা বের করে ফেলে রায়গঞ্জ থানার আইসি ও তাঁর পুলিশ দল। সেই রাতে গুলি বিদ্ধ হওয়া যুবক পুলিশের কাছে অকপটে সিকার করে নেয় যে তাঁর গুলির লাগার ঘটনাটি ছিল পুরোটাই তাঁর স্বরচিত নাটক।
ওই ঘটনার পর রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নুরালম হাসপাতাল থেকেই একটি ভিডিও তে রায়গঞ্জ পুলিশ প্রশাসনের ও সাংবাদিকদের কাছে খমা চেয়ে জানায়, আমি সুপরিকল্পিত ভাবে আমি নিজের পায়ে একটি লোহার শিক ঢুকিয়ে পা জখম করে দুষ্কৃতির গুলি চালানোর ঘটনার নাটক করি। যখন এরম কনো ঘটনাই সেই রাতে ঘটেনি। বাজারে অনেক টাকার ঋণ গ্রস্ত হয়ে পরায় আত্মহত্যা করতে গিয়ে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে সে।

রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরোজ থাপা বলেন, রায়গঞ্জ জেলা পুলিশ প্রধান সুমিত কুমার সাহেব দায়িত্ব গ্রহনের পর থেকেই উনার নেতৃত্বে ক্রাইম ও মাদক চক্রের বিরুদ্ধে লাগাতার অভিযান চলছে। সোমবার রাতের ঘটনাটা ছিল পুরোটাই সাজানো ঘটনা। এর আগেউ এরম ফেক ঘটনা ঘটেছে। তিনি সংবাদ মাধ্যমে রায়গঞ্জবাসী কে আশ্বস্ত করে বলেন আপনাদের নিরাপত্বা প্রদানে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ প্রশাসন ২৪ ঘন্টা সজাগ।
সেই রাতের গুলি বিদ্ধ হওয়ার ঘটনার সত্যটা রায়গঞ্জ থানার পুলিশ প্রকাশ্যে আনতেই শহরের বুদ্ধিজিবি মহল জানিয়েছেন রায়গঞ্জ শহর আগের থেকে অনেক শান্তির শহর। ক্রাইম মুক্ত রায়গঞ্জ উপহার দিয়েছে রায়গঞ্জ জেলা পুলিশ প্রশাসন।
এছাড়াও করোনা মহামারিতে আমাদের পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে তাঁরা ঘর পরিবার ছেরে মানুষকে সচেতন করা থেকে লকডাউনে আটকে পরা পরিবার পরিজনদেরকে তাঁদের পরিবারকে ফিরিয়ে দিয়েছে। সংবাদ মাধ্যমের মধ্য দিয়ে দেখেছি দুস্থ: পরিবারের মুখে অন্য তুলে দেওয়ার মতো চিত্র। যা সত্যি প্রশংসনীয়।
তবে পুলিশকে হয়তো আমরা অনেকেই পিঠ পিছে কুটুক্তি করে থাকি কিন্তু এই পুলিশেরাই পরিবার ছেরে দিন রাত এক করে আমাদের সুরক্ষিত রাখে। তাই আমাদের উচিত আমাদেরও তাঁদের সহযোগিতা করা ঠিক এইভাবেই পুলিশের প্রশংসা করলেন রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালের প্রাক্তন সুপারিন্ডেন্ট ডাক্তার ধীরেন্দ্র নাথ মজুমদার ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here