দিকবদল করে ধেয়ে আসছে ভারতীয় উপকূলে ঘূর্ণিঝড়, আছড়ে পড়বে ‘নিসর্গ’ ! কী জানাচ্ছে হাওয়া অফিস

0
151

দিকবদল করে ধেয়ে আসছে ভারতীয় উপকূলে ঘূর্ণিঝড়, আছড়ে পড়বে ‘নিসর্গ’ ! কী জানাচ্ছে হাওয়া অফিস

BAHRS GLOBAL NEWS, 31 MAY 2020
তীর্থঙ্কর মুখার্জি, নয়া দিল্লি : এবার পরবর্তী ঘূর্ণিঝড় ‘নিসর্গ’ পশ্চিম উপকূলে তাণ্ডব চালানোর জন্য শক্তি সঞ্চয় করছে। গভীর নিম্নচাপ ক্রমেই অভিমুখ বদল করেছে। ওমানের দিক থেকে পূর্ব দিকে ঘুরে এখন ভারতীয় উপকূল অভিমুখে গতি সঞ্চার করছে। ইতিমধ্যেই সুপার সাইক্লোন আম্ফান ভারতীয় পূর্ব উপকূলে তাণ্ডব চালিয়ে গিয়েছে। তছনছ করে দিয়েছে বাংলার সুন্দরবন উপকূল।
আরব সাগরে গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে চলেছে। তা দিকবদল করে ধেয়ে আসছে ভারতীয় উপকূলের দিকে। দিল্লির মৌসম ভবনের পূর্বাভাস আরব সাগরে সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড় ‘নিসর্গ’ আছড়ে পড়তে পারে ভারতীয় পশ্চিম উপকূলে। মহারাষ্ট্র ও গুজরাটের মধ্যে আগামী ৩ জুন আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়।
আইএমডি রবিবার সতর্কবার্তায় জানিয়েছে, আরব সাগর ও লাক্ষাদ্বীপের পাশে দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগরে অবস্থানরত নিম্নচাপ ২৪ ঘণ্টায় ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিতে পারে। সব ঠিকঠাক চলছে মহারাষ্ট্র থেকে গুজরাট উপকূলে তা আছড়ে পড়বে বুধবার। ঝড়ের তীব্রতা কতটা হচ্ছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাও স্পষ্ট হয়ে যাবে।
আইএমডির তরফে সতর্কতবার্তা সাগরে মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। ৪ জুন পর্যন্ত সাগরে নামা যাবে না। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, মহারাষ্ট্রের দক্ষিণ উপকূলে ২ থেকে ৪ জুন প্রবল বৃষ্টি হবে। ঝড় বইবে। উত্তর উপকূলে ২ থেকে ৩ জুন ঝড়-বৃষ্টি হবে। আর গুজরাট, দিউ ও দমনে ৩ থেকে ৫ জুন দুর্যোগ চলবে।
আবহাওয়া দফতরে আরও জানিয়েছে, এই নিম্নচাপ ও ঘূর্ণিঝড়ের হাত ধরেই কেরলে প্রবেশ করবে বর্ষা। ১ জুন থেকে বর্ষা ঢুকে পড়ার সম্ভাবনা প্রবল। মহারাষ্ট্র বর্ষা ঢুকবে ১০ জুন কেরলে ইতিমধ্যে বর্ষা পৌঁছে গিয়েছে বলে বেসরকারি আভহাওয়া সংস্থা জানায়। কিন্তু তা নাকচ করে দিয়েছে দিল্লির মৌসম ভবন।
আবহাওয়া অফিস আরও জানিয়েছে, আরব সাগরে মোট দুটি ঘূর্ণিপাক তৈরি হয়েছে। একটি অন্য অভিমুকে গেলেও অপরটি ভারতীয় উপকূল অভিমুখে ধেয়ে আসবে। এবং তা বুধবারের মধ্যে মহারাষ্ট্র ও গুজরাটের মধ্যে আছড়ে পড়ার কথা। এই জোড়া ঘূর্ণাবর্তের জেরে পশ্চিম উপকূলে দুর্যোগ আসন্ন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here