ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের সততার পরীক্ষায় ভারতের র‌্যাঙ্কিং অনেক খারাপ !

2
137

তীর্থঙ্কর মুখার্জি, নয়া দিল্লি : বিশ্বের সবচেয়ে কম দুর্নীতিগ্রস্ত কোন কোন দেশ ? ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের বিশ্বজুড়ে একটি সততার পরীক্ষা করে। সেই পরীক্ষায় ভারত মাত্র ৪০ শতাংশ নম্বর পেয়েছে৷ যখন সারা বিশ্বে এই গড় ৪৩ শতাংশ৷ আর এই ক্ষেত্রে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ৩১ টি দেশের গড় ৪৫ শতাংশ। ভারতের র‌্যাঙ্কিং এশিয়া-প্যাসিফিক গড়ের চেয়ে অনেক খারাপ।

সততার এই পরীক্ষায় ডেনমার্ক এবং নিউজিল্যান্ডের প্রাপ্ত নম্বর ১০০-র মধ্যে ৮৮ ৷ যা বিশ্বের সবচেয়ে কম দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ হিসবে নিজেদের প্রমাণ দিয়েছে৷ পাশাপাশি একি ভাবে সামন্য ব্যবধানে সিঙ্গাপুর, ফিনল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড এবং সুইডেন ৮৫ শতাংশ নম্বর পেয়ে বিশ্বের সবচেয়ে কম দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ হিসবে নিজেদের প্রমাণ দিয়েছে৷ ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার জন্য সরকারেরও সমালোচনা করেছে।

উল্লেখ্য, দুই মাস আগে, সারা বিশ্বের দুর্নীতি সংক্রান্ত ব্যারোমিটার জানিয়েছিল যে ভারতে ঘুষ নেওয়ার হার ৩৯ শতাংশ ৷ এই ক্ষেত্রে ভারত দুর্নীতিতে এগিয়ে রয়েছে। ভারতের সাধারণ মানুষ কোনও কাজ করাতে গেলে হয় উপরমহলের সুপারিশপত্র লাগে অথবা ঘুষ দিতে হয়৷ সুপ্রিম কোর্ট বলেছিল যে ১৯৯৩ সালের মুম্বই বোমা বিস্ফোরণ ঘটতই না, যদি আট জন পুলিশ আধিকারিক এবং পাঁচ জন শুল্ক আধিকারিক ঘুষ নেওয়ার পরে নজরদারি শিথিল করে না দিত ৷

ডেনমার্কের মতো দেশ, যারা কম দুর্নীতির জন্য বিখ্যাত ৷ ওই দেশ তাদের মোট উৎপাদনের ৫৫ শতাংশ জনসাধারণের কাজ এবং পরিষেবায় ব্যয় করে থাকে। তখন ভারত এই লক্ষ্যে গড়ে এর চার শতাংশও খরচ করতে পারে না৷ এমনকী, এই পরিমাণগুলিও দুর্নীতিগ্রস্তদের দ্বারা পরিচালিত হয়। দুর্নীতি দূরীকরণের লক্ষ্যে কার্যকর করা হয়েছিল তথ্যের অধিকার আইনটি৷

যদিও সেই আইন কার্যকরহীন অবস্থায় হয়ে পড়ে রয়েছে। এছাড়াও উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদে বৃষ্টির সময় কবরস্থানে তৈরি করা ছাউনি ভেঙে ২৫ জন মারা গিয়েছিল ৷ ওই ছাউনিটি তৈরি করতে ৩০ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছিল ৷ আর মোট খরচের মধ্য থেকে প্রায় ৩০ শতাংশ ঘুষ দিতে হয়েছিল৷

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here