উত্তর প্রদেশে হাতরসে ধর্ষিতার বাড়ি যাওয়ার পথে পুলিশি বাঁধা ও লাঠিচার্জের পর আটক রাহুল গান্ধি !

0
53

উত্তর প্রদেশে হাতরসে ধর্ষিতার বাড়ি যাওয়ার পথে পুলিশি বাঁধা ও লাঠিচার্জের পর আটক রাহুল গান্ধি!

সুস্মিতা পান্ডে , উত্তর প্রদেশ : হাতরাস কাণ্ডে ফুঁসছে গোটা দেশ। বৃহস্পতিবার উত্তর প্রদেশে হাতরসে ধর্ষিতার পরিবারের সাথে দেখা করতে যাওয়ার পথে যমুনা সেতুতে পৌঁছতেই যোগীর পুলিশ আটকে দেয় রাহুলের গাড়ি। সেই গাড়িতে ছিল প্রিয়াঙ্কাও। পায়ে হেঁটে এগোতে গেলে পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করে দেয়।
কিন্তু রাহুল-প্রিয়াঙ্কারা যমুনা সেতু থেকে নড়েনি। পুলিশের যুক্তি, ছিল পরিস্থিতি বেসামাল হওয়ায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এ যুক্তি না মেনে এগোতেই রাহুল গান্ধিকে আটক করা হয়। এরপরেই রাহুলের সপাট প্রশ্ন, আমি কি অন্যায় করেছি? কোন আইনে আটক করা হচ্ছে আমায়? রাহুল গান্ধি এদিন সংবাদমাধ্যমে বলেন, “আমাদের গাড়ি আটকে দিয়েছে, তাই আমরা পায়ে হেঁটেই এগোচ্ছিলাম।
এর মধ্যেই পুলিশ লাঠিচার্জ করে। আমাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয়। এ দেশে কি শুধু নরেন্দ্র মোদিই হাঁটবেন? সাধারণ মানুষের হাঁটারও অধিকার নেই?”। অপর দিকে প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বলেন, “আপনি প্রধানমন্ত্রীর ফোনের অপেক্ষায় ছিলেন ?
এক ধর্ষিতার পরিবারের সঙ্গে এ কেমন ব্যবহার? একজন মা তাঁর মৃত সন্তানের দেহ বাড়ি নিয়ে যেতে পারল না। আপনার সরকার কী ভাবে এত অমানবিক হয় ?। উত্তরপ্রদেশের ধর্ষণ কাণ্ডের আঁচ এসে পড়েছে দেশের রাজধানীতেও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here