আরো একটা নির্ভয়া,মৃত্যু হল দলিত যুবতির,যোগী রাজ্যের ৪ ধর্ষকের বর্বরতায় ফুঁসছে গোটা দেশ !

0
147

আরো একটা নির্ভয়া,মৃত্যু হল দলিত যুবতির,যোগী রাজ্যের ৪ ধর্ষকের বর্বরতায় ফুঁসছে গোটা দেশ !

অমিত শর্মা, নয়া দিল্লি : মঙ্গলবার সকাল ৬ টা নাগাদ দিল্লির সফদর জং হাসপাতালে ১৯ বছরের দলিত যুবতীর মৃত্যু হল। এদিন পুলিশ সুপারিনটেন্ডেন্ট ভিক্রান্ত বীর তাঁর মৃত্যুর খবর সুনিশ্চিত করেন। ১৯ বছরের ওই মহিলাকে ৪ জন মিলে ধর্ষণ করে হত্যা করেছিল। ১৪ সেপ্টেম্বর মায়ের সঙ্গে মাঠে কাজ করতে যান ওই যুবতী।
তার পর থেকে তাঁকে আর পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজাখুঁজির পর অবশেষে এক পরিত্যক্ত জায়গায় অচৈতন্য অবস্থায় খোঁজ মেলে তাঁর। তাঁর পুরো শরীর ভেসে যাচ্ছিল রক্তে। তাঁর জিভও ক্ষতবিক্ষত হয়ে গিয়েছিল। পুলিশের অনুমান, শ্বাসরোধ করায় তিনি নিজের জিভে কামড় দিতে বাধ্য হন। এরপর এই ঘটনার চার অভিযুক্তই গ্রেফতার হয়।
তাদের হাতরাস কোতোয়ালি থেকে পুলিশ লাইনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে জওহরলাল নেহরু মেডিক্যাল কলেজের সুপারিন্টেন্ডেন্ট হরিশ মনজুর খান জানান, তাঁকে ভেন্টিলেশনে নিতে হয়েছিল। তাঁর অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনকই ছিল।
নিম্নাঙ্গ প্যারালাইজড হয়ে গিয়েছিল। দলিত যুবতীর মৃত্যু নিয়ে বিএসপি মায়াবতীও এক হাত নিয়েছেন উত্তরপ্রদেশ সরকারকে। তিনি ট্যুইটারে লিখেছেন, “সমাজের একটা অংশ এই রাজ্যে সুরক্ষিত নয়।
পাশাপাশি এদিন এই মর্মান্তিক নারকীয় ঘটনায় অপরাধীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চেয়ে টুইট করেন এডভোকেট সুপ্রিম কোর্ট এবং একটি মানবাধিকার সংগঠনের চেয়ারম্যান তীর্থঙ্কর মুখার্জি ও মানবাধিকার সংগঠনের ওমেন সেলের রাজ্যের কার্যকারী সভাপতি পিয়ালী সিনহা।
এদিন পুলিশ সুপারিনটেন্ডেন্ট বলেন, অপরাধীরা কেবল ধর্ষণ করেই ক্ষান্ত হয়নি। তাঁকে শ্বাসরোধ করে খুন করার চেষ্টাও করা হয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here