অজির বিরুদ্ধে ভারতের জয়, অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে লজ্জাজনক অধ্যায় রচনার হাত থেকে বাঁচল!

194
1891

অজির বিরুদ্ধে ভারতের জয়, অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে লজ্জাজনক অধ্যায় রচনার হাত থেকে বাঁচল!

অমিত শর্মা, নয়া দিল্লি : বুধবার ক্যানবেরার মানুকা ওভালে অস্ট্রলিয়ার বিরুদ্ধে তাদেরই মাঠ তিন ম্যাচের সিরিজের শেষ মোকাবিলা জিতে গেল ভারতীয় ক্রিকেট দল। ৩০২ রানের পুঁজি নিয়ে লড়াইয়ে নেমে হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে শেষ পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়াকে ২৮৯ রানে অলআউট করে ১৩ রানে ম্যাচ জিতল মেন ইন ব্লু।
ক্যানবেরোতে সিরিজের শেষ ম্যাচ জিতে স্কোরলাইন ২-১ করল বিরাট অ্যান্ড কোম্পানি। ম্যাচে ভারতের হয়ে ৩টি উইকেট শার্দুল ঠাকুরের। ১০ ওভারে ৫১ রান খরচে তিনিই ভারতের হয়ে ম্যাচে সবচেয়ে বেশি উইকেট নিলেন। অভিষেক ম্যাচে ২টি উইকেট নিলেন টি নটরাজন।

তবে ডেথওভারে ম্যাক্সওয়েলকে ৫৯ রানে আউট করে শেষ মুহূর্তে বুমরাহ ম্যাচের মোর ঘুরিয়ে দেন। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শেষ উইকেটটিও তিনিই নিয়েছেন। ফলে বুমরাহ-শার্দুল-নটরাজনের নতুন বোলিং কম্বিনেশনের কাঁধে চেপে উত্তেজক ম্যাচ জিতে নিল ভারত। নিয়মরক্ষার ম্যাচে ১৩ রানের এই উত্তেজক জয়ে ভারতকে অবশ্য ঘাম ঝড়াতে হয়েছে। সিরিজে এই নিয়ে টানা তৃতীয় ম্যাচে জ্বলে ওঠেন ফিঞ্চ। অজি অধিনায়ক এদিন ৭৫ রান হাঁকান।
টানা দুই ম্যাচে শতরান হাঁকানোর পর স্মিথ শার্দুলের শিকার হয়ে এদিন ৭ রানে সাজঘরে ফেরেন। বাকিদের মধ্যে ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ৩টি চার ও ৪টি ছক্কায় ম্যাক্সওয়েল ৫৯ রান হাঁকান। অস্ট্রেলিয়াকে এদিন তিনি অবশ্য জয়ের গন্ডি পার করাতে পারলেন না।
এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে হার্দিক পান্ডিয়ায় ৭৬ বলে ৯২ রানে অপরাজিত ইনিংসে ভর করে ভারত স্কোরবোর্ডে ৩০২ রান তোলে। ৬৬ রানে অপরাজিত থেকে রবীন্দ্র জাদেজা হার্দিককে যোগ্য সংগত দিন। ষষ্ঠ উইকেটে দুজনে ১৫০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে অজিদের ৩০৩ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দেন। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান হাঁকিয়ে ম্যাচের সেরা হার্দিক পান্ডিয়া
একই সঙ্গে জাতীয় দলের অধিনায়ক হিসেবে এক লজ্জাজনক অধ্যায় রচনার হাত থেকেও বেঁচে গেল টিম ইন্ডিয়া। এমএস ধোনির সঙ্গে একই আসনে বসলেন বিরাট কোহলি। দেখে নেওয়া যাক পরিসংখ্যান।
অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাদের মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজের শেষ মোকাবিলা জিতে হোয়াইটওয়াশের হাত থেকে বেঁচেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। অন্যথায় একই বছরে দুই বার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যেত। গত ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজ হোয়াইটওয়াশের সম্মুখীন হতে হয়েছিল বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন টিম ইন্ডিয়াকে।

মানুকা ওভালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় ম্যাচ জিতে লজ্জাজনক অধ্যায় রচনার থেকে বেঁচে গিয়েছে টিম ইন্ডিয়া। গত নিউজিল্যান্ড সফর নিয়ে টানা ৫টি ওয়ান ডে ম্যাচ হেরেছে বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট দল। এদিন হারলে কিংবদন্তি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে টপকে যেতেন বিরাট।
১৯৮৯ সালে দিলীপ বেঙ্গসরকার, ১৯৮৮ সালে রবি শাস্ত্রী এবং ২০১৫-১৬ মরসুমে এমএস ধোনির ভারত পরপর পাঁচটি ওয়ান ডে ম্যাচ হেরেছিল। মানুকা ওভালে অস্ট্রলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় ম্যাচ জিতে সেই রেকর্ডেরই ভাগীদার হয়ে থাকল বিরাট কোহলির টিম ইন্ডিয়া।
১৯৮১ সালে সুনীল গাভাসকরের নেতৃত্বে টানা সাতটি ওয়ান ডে ম্যাচ হেরেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। মানুকা ওভালে অস্ট্রলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় ম্যাচ জিতেও কিংবদন্তির কাছেই রইলেন রান মেশিন।
২০১১-১২ মরসুমে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাদের মাটিতে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনি নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট দল। ভিন্ন ফর্ম্যাট হলেও আট বছর পর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে আবারও সিরিজ হোয়াইটওয়াশ হওয়া থেকে বেঁচে গেল বিরাট কোহলির টিম ইন্ডিয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here